অস্ট্রেলিয়ান ব্যক্তিকে বাংলাদেশী তরুনীর ছুরিকাঘাত

২৪ বছর বয়সী এক বাংলাদেশী তরুনী সম্প্রতি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে আলোচনায় এসেছেন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার দায়ে। অস্ট্রেলিয়ায় পড়াশোনা করতে যাওয়া মোমেনা সোমা ছুরিকাঘাত করে গুরুতর আহত করেছেন এক অস্ট্রেলিয়ান নাগরিককে। এই ঘটনাটি ইসলামিক জঙ্গি কর্মকাণ্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ত বলে জানিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার পুলিশ।

সন্ত্রাসের দায়ে মোমেনার পরিবারকে নেওয়া হয়েছে রিমান্ডে। পরিবারের সদস্যরা তাদের “মেধাবী ছাত্রী”র এই ঘটনায় হতবাক হয়ে গিয়েছেন এবং প্রচণ্ড বিস্ময় প্রকাশ করেছেন। স্কলারশিপ নিয়ে পড়াশোনা করতে অস্ট্রেলিয়া গিয়েছিল মোমেনা।

জানা যায়, মোমেনা ৫৬ বছর বয়সী অস্ট্রেলিয়ান নাগরিক রজার সিঙ্গারাভেলুকে মেলবোর্নে তার নিজ বাড়িতে ঘুমন্ত থাকা অবস্থায় আক্রমন করেছেন। মোমেনা ঐ ব্যক্তির ঘরে প্রবেশ করে একটি ধারালো ছুরি দিয়ে তার ঘাড়ে আঘাত করে গুরুতরভাবে আহত করে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আক্রমনের সময় মোমেনা বোরকা পরেছিলেন। এটি জানিয়েছে আহত সেই অস্ট্রেলিয়ান ব্যক্তির পাঁচ বছর বয়সী কন্যা। এ ঘটনার পরে মোমেনাকে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে জড়িত থাকার দায়ে গ্রেফতার করা হয়েছে।

কাস্টডিতে তার সাথে যোগাযোগ করতে গেলে সেখানে তার পরিবারের সাথে কথা বলেন সাংবাদিকেরা। মোমেনার চাচা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা। তিনি জানান যে, মোমেনার বিরুদ্ধে আনা এমন অভিযোগ ও তাকে গ্রেফতার করার ঘটনাটি মেনে নিতে পারছেন না তার পরিবারের সদস্যরা। মোমেনা অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার আগেই তার সাথে কথা হয়েছিলো তার চাচার। সে তার কাছে দোয়া চেয়েছিলো।

ফেব্রুয়ারির শুরুতেও চাচার সাথে কথা হয় মোমেনার। তখন সে জানিয়েছিলো সব কিছু ঠিক আছে এবং সে ভালো আছে। তার চাচা এখন ভেবে পাচ্ছেন না যে, সমস্যাটা তাহলে আসলে কি ছিলো, যে মোমেনা এমন কিছু করে বসলো।

ভিক্টোরিয়া পুলিশের দায়িত্বরত সহকারী পুলিশ কমিশনার রস গান্থার জানান, মোমেনার সাথে প্রাথমিক আলাপের পর ধারনা করা হচ্ছে এই আক্রমন জঙ্গিবাদের সাথে সংশ্লিষ্ট।

আহত ব্যক্তি বর্তমানে রয়্যাল মেলবোর্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। হাসপাতালটির একজন চিকিৎসক জানিয়েছেন তিনি এখন আশঙ্কামুক্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *