খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড: কী বলছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম

অনেক নাটকীয়তার পর জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। ৩৬ বছরের রাজনৈতিক জীবনে এবারই প্রথমবারের মতো সাজা নিয়ে কারাগারে যেতে হয়েছে খালেদা জিয়াকে। এ নিয়ে বেশ সরগরম হয়ে আছে বাংলাদেশের রাজনৈতিক অঙ্গন। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোতেও বেশ গুরুত্বের সঙ্গে উঠে এসেছে খালেদা জিয়ার এই কারাদণ্ডের বিষয়টি।

দুপুর নাগাদ রায় ঘোষণার পরপরই বিবিসি অনলাইনে গুরুত্ব দিয়ে প্রকাশিত হয়েছে বাংলাদেশ পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তারিত প্রতিবেদন। যার শিরোনাম করা হয়েছে, ‘সহিংসতার মধ্যে কারাগারে বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া।’ প্রতিবেদনের শুরুতেই বলা হয়েছে বাংলাদেশের সহিংস পরিস্থিতির কথা। এরপর দেওয়া হয়েছে খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক জীবনের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি।

বার্তাসংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে শুরুতেই উল্লেখ করা হয়েছে রায় নিয়ে খালেদা জিয়া ও বিএনপির অসন্তোষের কথা। এই রায়ের বিরুদ্ধে যে আপিল করা হবে সেটাও উঠে এসেছে রয়টার্সের এই প্রতিবেদনের শুরুতে। খালেদা জিয়ার কারাদণ্ডের পর পুলিশের সঙ্গে বিএনপির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ ও আটক হওয়ার কয়েকটি ছবিও যুক্ত করা হয়েছে প্রতিবেদনটিতে।

বার্তাসংস্থা এএফপির প্রতিবেদনটিও করা হয়েছে প্রায় একইভাবে। এটির শিরোনাম ছিল, ‘দুর্নীতির দায়ে বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের কারাদণ্ড’। এই রায়ের ফলে খালেদা জিয়া যে আগামী জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না, সেটার উল্লেখ আছে প্রতিবেদনটির শুরুতেই। চীনের বার্তা সংস্থা শিনহুয়ার শিরোনাম ছিল, ‘বাংলাদেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের কারাদণ্ড’।

প্রতিবেশী দেশ ভারত ও পাকিস্তানের প্রায় সবগুলো গণমাধ্যমেই গুরুত্ব দিয়ে প্রকাশিত হয়েছে খালেদা জিয়ার এই কারাদণ্ডের খবর। বাংলাদেশের জাতীয় রাজনীতির এই বড় সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে আল জাজিরা, ওয়াশিংটন পোস্ট, এবিসি নিউজসহ বড় বড় প্রায় সবগুলো গণমাধ্যমেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *