হাওয়ায় ভেসে ভেসে নাচেন যারা!

কল্পনা করুন যে, আপনি হাওয়ায় ভাসছেন। এ অবস্থায় বাজানো হলো আপনার খুবই প্রিয় একটি গান। মন চাইল নেচে উঠতে। কিন্তু হাওয়ায় ভাসতে ভাসতে কিভাবে নাচা সম্ভব? উত্তর জানার জন্য তাকাতে হবে ‘জিরো গ্রাভিটি এয়ার বাস’ নামের বিশেষ বিমানটির দিকে। যেখানে বিশেষ প্রক্রিয়ায় শূণ্য করে দেওয়া হয় মধ্যাকর্ষণ শক্তি। ফলে মহাশূণ্যে ভেসে বেড়ানোর মতো একটা অভিজ্ঞতা হয় যাত্রীদের। আর সেই বিমানেই সম্প্রতি নৃত্য প্রদর্শণ করে ইতিহাস গড়েছে একটি ড্যান্স ক্লাব।

পৃথিবীজুড়ে এক প্রতিযোগিতায় ৩০ হাজার প্রতিযোগীকে পিছনে ফেলে ভূমধ্যসাগরের উপর “ভরহীন” বিমানে চড়ার সুযোগ বাগিয়ে নিয়েছিলেন কয়েকজন নৃত্যশিল্পী। এরপর জার্মানীর একটি সংস্থা এই বাছাইকৃত নৃত্যশিল্পীদের তৈরি করে দিয়েছিল শূন্য অভিকর্ষে নাচের সুযোগ।

জার্মানীর ফ্রাংকফুর্ট শহরের “বিগ সিটি বিটস” নামের এই সংস্থাটি পৃথিবীজুড়ে আয়োজিত এক প্রতিযোগিতার মাধ্যমে নির্বাচন করেছিল ৫০জন নৃত্যশিল্পীকে। বুধবারে অনুষ্ঠিতব্য “ওয়ার্ল্ড ক্লাব ডমেস্টিক ফেস্টিভাল” নামের এক উৎসবের অংশ হিসেবে তাদেরকে একটি নাচে মেতে উঠতে হবে বলে জানা যায়।

যুক্তরাষ্ট্র, মরক্কো, স্পেন, জার্মানী, অস্ট্রেলিয়াসহ বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে আসা বিজয়ী এই ৫০ জন নৃত্যশিল্পী এমন সুযোগ নিজের করে নিতে পিছনে ফেলেছেন ৩০ হাজার প্রতিযোগীকে। এই প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হয়েছিলো “জিরো গ্রাভিটি এয়ার বাস” নামের এক বিমানে, যার অভ্যন্তরে বিশেষ প্রক্রিয়ায় অভিকর্ষের মাত্রা শূন্য করে দেওয়া সম্ভব।

গবেষনার কাজে ব্যবহৃত এই বিমানটি নভোচারীদের প্রশিক্ষনের কাজে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। ভূমধ্যসাগরের উপরে ১৬টি বিশেষ উপায়ে চলাচলের মাধ্যমে এটি চার ঘন্টা ধরে এর অভ্যন্তরে ভূপৃষ্ঠের আকর্ষনকে বাধাগ্রস্ত করতে সক্ষম। বিমানটি এমনভাবে নিয়ন্ত্রিত হয়, যেন ভিতরের মানুষেরা আকাশে ভেসে থাকার অনুভূতি পান।

এই আয়োজনটি ফেসবুক লাইভের মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়েছিলো। এখানে সঙ্গীতের দায়িত্ব পালন করেছেন ডিজে স্টীভ আওকী এবং ডিজে ডাব্লিউ অ্যান্ড ডাব্লিউ।

যুক্তরাষ্ট্রের ইলেক্ট্রো হাউজ ঘরানার সংগীতে পারদর্শী আওকী বলেন, “আমার জীবনের সব অভিজ্ঞতার মধ্যে এটি অন্যতম এক অদ্ভুত অভিজ্ঞতা। বিমানের ছাদের সাথে বসে থাকাটা ছিলো সবচেয়ে মজার।“

যারা এই আয়োজনে এবার অংশ নিতে পারেননি তাদের অবশ্য হতাশ হবার কিছু নেই, তাদেরও রয়েছে সুযোগ। ১৫টি জিরো গ্রাভিটি বিমান এখনো রয়েছে। তাই তারা পুনরায় এর জন্য আবেদন করতে পারবেন। আর কেউ চাইলে এই বিমান ব্যক্তিগতভাবে ভাড়া করতেও পারবেন। সেজন্য প্রতি টিকিটের জন্য গুনতে হবে ৬,০০০ ইউরো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *