চীনে উড়ল পৃথিবীর প্রথম যাত্রীবাহী ড্রোন!

ছবি তোলা বা ভিডিও করা থেকে শুরু করে বোমা মারা পর্যন্ত- পুরো বিশ্বজুড়ে ড্রোনের ব্যবহার চলছে বেশ কয়েক বছর ধরেই। পরিবহন ব্যবস্থায় কিভাবে এই ড্রোন কাজে লাগানো যায়, সেটা নিয়েও কথাবার্তা চলছিল বেশ কিছুদিন ধরে। তবে এবার আর কথা না, কাজেই জিনিসটা করে দেখিয়েছে চীন। গত মঙ্গলবার চীনের আকাশে উড়েছে বিশ্বের প্রথম যাত্রীবাহী ড্রোন।

চীনের প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ইহাং-এর তৈরী বিশ্বের প্রথম যাত্রীবাহী ড্রোনটি এক জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ওড়ানো হয়েছে গুয়াংজু শহরে। ইহাং-এর এই বিদ্যুৎচালিত ড্রোনটি স্বয়ংক্রিয় ফ্লাইট সিস্টেম দ্বারা পরিচালিত হবে। তাই এটি চলার সময় যাত্রীদের প্রায় কিছুই করতে হবে না।

ইহাং সংস্থার প্রধান হু হুয়াজি বলেন,  ‘এখনপর্যন্ত অন্য কোন উড়ন্ত যান সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় নয়। তাই এই ড্রোনটির মাধ্যমে ইহাং অন্যদের থেকে অনেকদূর এগিয়ে গেল। আজকে আমাদের সফল উড্ডয়ন এর মাধ্যমে আমরা দেখাতে সক্ষম হয়েছি যে সায়েন্স ফিকশন সিনেমায় দেখা দৃশ্যগুলো এখন মানুষের খুব কাছে চলে এসেছে।‘ সংস্থাটি জানায়,  স্বয়ংক্রিয়ভাবে চালিত ড্রোনটি ২৩ ঘন্টার জন্য ১০০ কেজি পর্যন্ত ওজনের যাত্রী বহনে সক্ষম এবং এটি ঘন্টায় ১০০ কিলোমিটার যেতে পারে।

ইহাং-এর সহপ্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও ডেরিক জিওং বলেন, ‘ড্রোনটি রাস্তায় তৈরী ট্রাফিক জ্যাম থেকে মানুষকে রক্ষা করতে পারে । তবে আমরা এর আরও ব্যবহার নিয়ে ভাবছি যেমন, তাৎক্ষণিক নিরাপত্তার কাজে, হাসপাতালে রোগী আনা নেওয়ার কাজে অথবা ভ্রমনের ক্ষেত্রে যেমন এক দ্বীপ থেকে অন্য দ্বীপে যেতে’ ।

গত বছর এই ইহাং ও দুবাই স্বয়ংক্রিয়ভাবে উড়ন্ত ট্যাক্সি নির্মাণে সহযোগিতা করার সিদ্ধান্তে পৌঁছেছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *