কাশ্মীরে শিশু ধর্ষনের প্রতিবাদে উত্তাল ভারত

ভারতে গণধর্ষনের পরে শিকার হয়েছে আট বছরের এক কিশোরী, আর এ নিয়ে বিক্ষোভে ফেটে পড়েছে দেশটির নাগরিকেরা। মুসলিম যাযাবর গোষ্ঠীর কন্যা আসিফা বানু’র লাশ গত ১৭ জানুয়ারি ভারত শাসিত কাশ্মীরের কাঠুয়া শহরের একটি জঙ্গলে পাওয়া গিয়েছিল। জানা গেছে বিবিসির প্রতিবেদন থেকে।

খবরটি পুনরায় শিরোনামে আসে যখন হিন্দু ডানপন্থীরা আটজন হিন্দুর গ্রেপ্তারের পরে বিক্ষোভে নামেন। তারা হিন্দু গ্রেপ্তার মেনে নেননি এবং তাদেরকে নির্দোষ বলে দাবি করছেন। পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত যাদের গ্রেপ্তার করেছে তাদের মধ্যে একজন প্রাক্তন সরকারী কর্মকর্তা, চারজন পুলিশ সদস্য এবং একজন কিশোর রয়েছেন, যারা সকলেই এক হিন্দু কমিউনিটির সদস্য।

১৯৮৯ সাল থেকেই ঘটনার স্থানটিতে সশস্ত্র বিদ্রোহ চলে আসছে। তবে এই বর্বর ঘটনাটি ঘটেছে জাম্মু এলাকার হিন্দুগরিষ্ঠ অঞ্চলে।

একটি মুসলিম যাযাবর কৃষক শ্রেণীর পরিবারের মেয়ে আসিফা। মূলত গবাদিপশু পালনের মাধ্যমেই জীবিকা নির্বাহ করে থাকে তারা। হিমালয়ের পাশে অতিরিক্ত ঠান্ডার কারণে শীতকালে তারা জাম্মুতে চলে আসে। সেখানে জঙ্গলে পশুপাখি চরায় আর তা থেকেই হিন্দুদের সাথে সংঘর্ষমূলক পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়।

তদন্তকারীরা মনে করছেন, অভিযুক্তরা চেয়েছিলেন এই যাযাবরদেরকে জাম্মু থেকে বিতাড়িত করতে। তাদের যখন গ্রেপ্তার করা হয়, তখন জাম্মু শহরের আইনজীবিরা পুলিশদের আদালতে ঢুকে চার্জশীট জমা দিতে বাধা দিতে চেষ্টা করেন। আইনজীবিরা ডানপন্থী হিন্দুদের সাথে একাত্ম হয়ে দাবি করছেন যে, অভিযুক্তরা আসলে নির্দোষ এবং আরো দাবি করছেন যা এই মামলা যেন ভারতের ফেডারেল পুলিশের কাছে হস্তান্তরিত হয়।

বিরোধীদল কংগ্রেস পার্টির প্রধান রাহুল গান্ধী গত বৃহস্পতিবার রাতে দিল্লীতে একটি মোমবাতি মিছিলের নেতৃত্ব দেন। এই নির্মম ঘটনার প্রতিবাদের পাশাপাশি ভারতজুড়ে নারীদের সাথে হিংস্রতা প্রতিহত করার দাবিতে আরো অনেক স্থানে প্রতিবাদ হয়েছে। দিল্লী নারী কমিশনের প্রধান স্বাতী মালিওয়াল জানান, তিনি শুক্রবার থেকে দেশের নারী ও শিশুদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের উদ্দেশ্যে অনির্দিষ্টকালের জন্য অনশন করবেন।

অনেক আন্দোলনকারী কাঠুয়ার এই ঘটনার পাশাপাশি প্রতিবাদ করছেন উন্নাও এর এক ধর্ষনের বিচারের দাবিতে। ক্ষমতায় থাকা বিজেপি এর কূলদীপ সিং সেনগার (৫০) এর বিরুদ্ধে অভিযোগ আছে গত বছর উন্নাও জেলায় এক মেয়েকে ধর্ষন করার। সেই মেয়েটির অভিযোগ প্রথমে থানায় গৃহীত না হওয়ায় তিনি প্রধানমন্ত্রীর বাড়ির সামনে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান, এরপরে তার মামলা নথিভুক্ত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *