গ্র্যামিতে কেন সাদা গোলাপ এনেছিলেন তারকারা?

গ্র্যামির লাল গালিচায় বিশ্বখ্যাত তারকারা এই বছর উপস্থিত হচ্ছেন নতুন এক অনুষঙ্গ নিয়ে। এই বছরের গোল্ডেন গ্লোব পুরষ্কারের আসরে কালো পোষাক নিয়ে যে সফলতা এসেছিলো, তারই ধারাবাহিকতায় “টাইম’স আপ” আন্দোলনকে সমর্থন জানাতে গ্র্যামির আসরে তারকাদের আহবান জানানো হয়েছে একটি করে সাদা গোলাপ ধারণ করে রাখার জন্য।

টাইমস আপ মুভমেন্ট হলো একটি আন্দোলন, যা শুরু করেছিলেন বিনোদনজগতের প্রায় ৩০০ জন প্রভাবশালী ব্যক্তিবর্গ। বিনোদনজগতে যৌন হয়রানী প্রতিরোধের জন্য শুরু হয়েছে এই আন্দোলন।তাছাড়া অন্যান্য খাতে নারীদের সহায়তার জন্য গঠন করা হয়েছে একটি নিরাপত্তা ফান্ড।

রক নেশনের মার্কেটিং কর্মকর্তা মেগ হারকিন্স, রিদমিক প্রোমশন, ইন্টারস্কোপ রেকর্ডসের ক্যারেন রাইটসহ আরো ১৫ নারী মিলে তৈরি করেছেন “ভয়েসেস ইন দ্য এন্টারটেইনমেন্ট” নামের একটি গ্রুপ। সেখানে তাদের সহকর্মীদের #timesup নামক এক ক্যাম্পেইনে উৎসাহিত করে আসছেন। সেজন্যই নিউ ইয়র্কে অনুষ্ঠিত গ্র্যামির ৬০তম আসরে তাদেরকে আহবান জানানো হয় সাদা গোলাপ বহন করার জন্য। গ্রুপের একটি চিঠিতে বলা হয়, “আমরা সাদা গোলাপ বেছে নিয়েছি কারণ ইতিহাসে সাদা গোলাপ হলো আশা, শান্তি, সহানুভূতি এবং বিরোধিতার প্রতীক”।

তারকাদের মধ্যে অনেকেই সে আহবানে সাড়া দিয়েছেন। রিটা ওরা তার কালো জামার সাথে পরেছিলেন এক বড় মাপের সাদা গোলাপ। ক্যামিলা কাবেলোর হাতের আংটির সাথে ঝুলছিলো একগুচ্ছ সাদা গোলাপ। কেলী ক্লার্কসন ডাটিসহ একটি গোলাপ বহন করেছেন। লেডি গাগাকে দেখা গিয়েছে তার কাধে একটি গোলাপ বেধে নিয়ে এসেছিলেন।

গ্র্যামি শুরুর আগে বৃহস্পতিবার রাতে এক পার্টিতে  রিটা ওরা তার গোলাপ বহনের ইচ্ছার কথা জানিয়ে বলেন, “পৃথিবীর অনেক অংশে বহু যুগ ধরে সাদা গোলাপ শান্তির প্রতীক হিসেবে পরিচিত। আর আমার জন্য শান্তিপূর্ন অবস্থা এখন খুবই প্রয়োজনীয়। হলিউডে চলমান সকল অনিয়মের প্রতিবাদের খুব সুন্দর একটি পন্থা এটি এবং আমার মনে হয় এটি যত বেশি প্রচার পাবে, ততই মঙ্গল। তাই আমি আগামীতেও এই সাদা গোলাপটি পরতে চাই”।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *