চার মাসে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৫৫২

এবছরের প্রথম চার মাসে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন ১,৫৫২ জন মানুষ। আহত হয়েছেন তিন হাজারেরও বেশি মানুষ। পুরো দেশজুড়ে প্রায় দেড় হাজার সড়ক দুর্ঘটনায় এই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। সড়ক নিরাপত্তা নিয়ে কাজ করা বেসরকারি একটি সংগঠন ন্যাশনাল কমিটি টু প্রটেক্ট শিপিং, রোড অ্যান্ড রেলওয়ে (এনসিপিএসআরআর)-এর প্রতিবেদন থেকে এমনটাই জানা গেছে।

নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে ১৯৫ জন নারী ও ২৬৮ জন শিশু। প্রাণঘাতী এসব দুর্ঘটনা ঘটেছে দেশের বিভিন্ন জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়কে। গত পহেলা জানুয়ারি থেকে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত দেশের ২২টি জাতীয় দৈনিক, ১০টি আঞ্চলিক সংবাদপত্র ও আটটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল থেকে তথ্য নিয়ে এই প্রতিবেদন তৈরি করেছে এনসিপিএসআরআর।
এবছরের জানুয়ারিতেই ৩৮৩টি সড়ক দুর্ঘটনায় ৪১১জন প্রাণ হারিয়েছে। আহত হয়েছে ৭২৫ জন। আর ফেব্রুয়ারিতে ৪০১টি দুর্ঘটনায় প্রাণ গেছে ৪১৫ জনের। আহত হয়েছে ৮৮৪ জন। মার্চ ও এপ্রিল মাসে ঘটেছে যথাক্রমে ৩৮৪ ও ৩২৭টি সড়ক দুর্ঘটনা। আর এতে প্রাণ গেছে ৩৮৬ ও ৩৪০ জনের।
এই সড়ক দুর্ঘটনার পেছনে ১০টি প্রধান কারণ সনাক্ত করা গেছে বলে জানিয়েছেন এনসিপিএসআরআর-এর জেনারেল সেক্রেটারি আশিস কুমার দে। সেগুলো হলো: চালকদের প্রতিযোগিতামূলক মনোভাব, প্রতিদিনের ভিত্তিতে চুক্তিমূলকভাবে গাড়ি ড্রাইভার বা কন্ট্রাক্টরকে দেওয়া, লাইসেন্স ছাড়া ড্রাইভার নিয়োগ, পথচারী ও হালকা যানবাহন চলাচলে অসচেতনতা, মাত্রাতিরিক্ত মালামাল বোঝাই, ট্রাফিক আইন ভঙ্গ ইত্যাদি।

এছাড়াও বিরতি না দিয়ে দীর্ঘপথ যাত্রা, হাইওয়েতে ট্রাফিক আইন না মানা, রাস্তায় চলাচলের অনুপযোগী যানবাহন চালানো, মোটরচালিত বিভিন্ন যানবাহনে মালামাল ও যাত্রী বহন করা ইত্যাদিকেও কারণ হিসেবে সনাক্ত করেছে এনসিপিএসআরআর।