মাছও এত বড় হয়!

কিছু তথ্য আমাদের জানা থাকলেও চোখের সামনে সেই জিনিসটা ঘটতে দেখলে অবাক হওয়া ছাড়া উপায় থাকে না। যেমন আমাদের এই তথ্যটা জানাই আছে যে, সমুদ্রে অনেক বিশাল আকারের সব মাছ ঘোরাফেরা করছে। কিন্তু সত্যিই যখন তেমন একটা মাছ দেখা গেল, তখন চোখ কপালে উঠে গেছে অনেকেরই। বিস্ময়ে হয়তো অনেকেই বলে উঠবেন, ‘মাছও এত বড় হয়!’

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ায় ছুটি কাটাতে গিয়ে ৬২ কেজি ওজনের এক দৈত্যাকার মাছ শিকার করেছেন ব্রিটিশ পর্যটক। বড়শি দিয়ে সেই মাছটি নৌকায় তুলে আনতে বেশ কষ্ট করতে হয়েছে ৬৮ বছর বয়সী এই পর্যটককে।

ব্রিটিশ এই পর্যটক তার ছেলের সাথে মাছ শিকারে এসে ৬২ কেজি ওজনের বিশালাকার একটি মাছ শিকার করেন তার বরশীতে। যুক্তরাজ্যের  নারী সুই এলকক তার ছেলের এবং পুত্রবধূর মিশেলের সাথে দেখা করতে গত সপ্তাহে পশ্চিম আস্ট্রেলিয়ায় বেড়াতে আসেন। তিনি জানান যে, যখনই তিনি বঁড়শির সুতায় টান অনুভব করেন তখনই তিনি বুঝতে পারেন যে এটা বিশালাকার মাছই হবে, ‘ মাছটি যখন তার মাথা পানির ওপর জাগায় তখন তার মাথাটি দেখে আমি বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। এটা ছিল খুবই বড়’।

পার্থের প্রায় ১২০ কিলোমিটার উত্তরে লেন্সেলিনের উপকূলে মাছের সাথে ৪০  মিনিট সুতা টানাটানির পর মিস এলকক বিশাল মাছটিকে নৌকাতে আনতে সক্ষম হন। কিন্তু যুক্তরাজ্যের লিলেশাল থেকে আসা এলকক বলেন, কঠোর পরিশ্রম তখনও  শেষ হয়নি।

এমনকি তার ছেলে এবং তার মাছ ধরার বন্ধুদের সাহায্য সত্ত্বেও এলকক বলেন যে, দর্শনীয় আকারের মাছটি কাটতে  যথেষ্ট পরিমাণ সময় লাগেছিল, ‘স্যামন ও মিশেল মাসব্যাপী মাছটি খেতে পারবে যখন আমি যুক্তরাজ্যে ফিরে যাব।’

রিল ফোর্স চত্বরে পোস্ট করা ফুটেজে,  এলককের মুখে অবিশ্বাসে হাসি দেখায যায় যখন নৌকাটি মাছের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল। ‘এটির আকারের দিকে তাকান,’ একজন সহকর্মী জেলেকে ক্যামেরাটির পিছন থেকে বলতে  শোনা যায়।